শুক্রবার, ৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২০ ইং, সকাল ৭:১৪
শিরোনাম :
হঠাৎ করে এলপিএল ছেড়ে দেশে ফিরে গেলেন আফ্রিদি…! যুবলীগ ও হেফাজতে ইসলাম মুখোমুখি, নবীনগরে পরিস্থিতি কিছুটা উত্তপ্ত রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে স্থানান্তর করা হবে এ মাসেই ঝালকাঠিতে রহস্যজনক অগ্নীকান্ড, একুশে টিভির জেলা প্রতিনিধি আজমীরের বাসভবনে…! গ্রামকে শহরে রূপান্তরিত করার লক্ষে মুলাদী সদর ইউনিয়নে ওয়ার্ড সভায় প্রধান অতিথি ইউপি চেয়ারম্যান কামরুল আহসান বিশ্বে এখন করোনায় আতংকিত একদিনেই ১২ হাজারের বেশি মানুষের প্রাণহানি..! বাংলাদেশ সাংবাদিক ও সংবাদপত্র ঐক্য পরিষদ, কেন্দ্রীয় কমিটির গঠন ! সভাপতি রেদওয়ান সিকদার রনি ও সাধারণ সম্পাদক আবুবকর সিদ্দীক বরিশাল বিএম কলেজের নতুন অধ্যক্ষ জিয়াউল হক মুলাদীতে প্রাকৃতিক দূর্যোগের কারণে ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে বীজ ও রাসায়নিক সার বিতরন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি উপজেলা চেয়ারম্যান মিঠু খান বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে চলচ্চিত্র ‘একজন মহান পিতা’

উজিরপুরে গৃহবধূকে নির্যাতনের ঘটনায় প্রধান আসামী নিখিল চন্দ্র হালদার গ্রেফতার

বাবুগঞ্জ বিশেষ প্রতিনিধি ঃ

উজিরপুর উপজেলার গুঠিয়ায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে কমলা হালদার (২৭) নামে এক গৃহবধূকে পিটিয়ে নির্যাতন করার অভিযোগ উঠেছে। আহত গৃহবধূ উজিরপুর উপজেলার গুঠিয়া ইউনিয়নের নিত্যানন্দী গ্রামের বিজয় চন্দ্র হাওলাদার এর স্ত্রী। এ ব্যাপারে উজিরপুর মডেল থানায় গত ২২ অক্টোবর ৪ জনকে অাসামী করে একটি মামলা করা হয়েছে। মামলা নং -২৫। এ ঘটনায় মামলার ১ নং অাসমী নিখিল চন্দ্র হালদার কে গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরন করেছে উজিরপুর থানাপুলিশ। মামলা ও স্বজনদের সূত্রে জানাজায়, গত ২০ অক্টোবর দুপুর দেড়টায় আহত কমলা হালদার এর স্বামী বিজয় চন্দ্র হাওলাদার তার বসত ঘরের উপরের একটি কাউফল গাছের ডাল কাটলে একই বাড়ির বিজয় চন্দ্র হাওলাদার অশ্লীল ভাষায় গালাগালি শুরু করে। বিজয় চন্দ্র হালদার এর স্ত্রী কমল হালদার প্রতিবাদ করলে একই বাড়ির নিখিল চন্দ্র হালদার, বিউটি রানী, সনজিৎ হালদার, বৃষ্টি হালদার একত্রে কমলা হালদার কে এলোপাথাড়ি ভাবে শরীরের বিভিন্ন স্থানে পিটিয়ে জখম করে ও শ্লীতা হানিসহ গলা টিপে হত্যা করার চেষ্টা করে। এসময় তার ১৭ মাসের শিশুকে ধরে অাচার দেয় বলে জানিয়েছে ভুক্তভোগী পরিবার। বিজয় চন্দ্র হালদার বলেন, সম্পত্তি জবর দখল করে অামাদের বাড়ি থেকে উচ্ছেদের উদ্দেশ্যে অামার স্ত্রী কমলা হালদার ও শিশু কন্যা বিন্দাশ্রী কে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতনের যথাযথ কতৃপক্ষের মাধ্যমে বিচার চাই।