বুধবার, ১৫ই জুলাই, ২০২০ ইং, বিকাল ৫:২৩
শিরোনাম :
বরিশালের মুলাদীর ফেক আই ডি কাজিরচর নিউজ বুলেটিন এর বিরুদ্ধে থানায় জি.ডি পিরোজপুরে দুই বোনসহ তিনজনের করোনা শনাক্ত করোনার ক্রান্তিকালে মানবিকতার অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে পিরোজপুর জেলা পুলিশে কর্মরত ৪৬ তম ব্যাচের পুলিশ কনস্টেবলগণ করোনা আক্রান্তের হার সবচেয়ে বরিশালে কম, সর্বোচ্চ ঢাকায় ঝালকাঠির রাজাপুরে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার ত্রাণ তহবিল থেকে অসহায় দুঃস্থদের মাঝে চিকিৎসা সহায়তার চেক বিতরণ জানি কিন্তু মানিনা, নীতিকে পাশ কাটিয়ে মৃত্যুর ঝুঁকি নিয়ে ব্যবসা নলছিটিতে ইয়াবাসহ চার মাদক কারবারি গ্রেপ্তার দেশে করোনায় নতুন শনাক্ত ৭০৯ করোনা তহবিলে টাইগারদের ৩০ লাখ; আরও সাহায্য চাইলেন মুশফিক করোনায় থেমে নেই পদ্মা সেতুর কাজ, বসছে ২৯তম স্প্যান

বাড়ি লকডাউন করতে গিয়ে দেখা গেল করোনা রোগী মার্কেটিং করতে বের হয়েছে শহরে

বিজলী ডেক্স:

চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ার একটি গ্রামে করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির বাড়ি লকডাউন করতে গিয়ে জানা গেছে তিনি ফার্নিচার কিনতে চট্টগ্রাম শহরে গেছেন।

শনিবার সকালে রাঙ্গুনিয়া উপজেলার মুরাদনগরে পুলিশ আক্রান্তের বাড়ি লকডাউন করতে গিয়ে এ তথ্য পেয়েছে।

রাঙ্গুনিয়া থানার এস আই মোহাম্মদ ইসমাইল হোসেন জুয়েল  বলেন, ‘শুক্রবার রাঙ্গুনিয়ার চার ব্যক্তির রিপোর্টে করোনা পজিটিভ আসার বিষয়টি উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তার অফিস থেকে জানানো হয়। নিয়ম অনুযায়ী আমরা বাকি তিন ব্যক্তির বাড়ি লকডাউন করে যখন চতুর্থ ব্যক্তির বাড়িতে যায় তখন জানতে পারি উনি ফার্নিচার কিনতে চট্টগ্রাম শহরের জুবিলি রোডে গেছেন।’

‘আসা-যাওয়ার পথে তিনি অনেককে আক্রান্ত করে থাকবেন। এ ধরনের ঘটনায় খুবই দুঃখজনক। আক্রান্ত ব্যক্তির সাথে যোগাযোগ করলে তিনি শহরে এক আত্মীয়ের খালি বাসায় আইসোলেশনে যাবেন বলে আমাদের জানিয়েছেন,’ যোগ করেন তিনি।

রাঙ্গুনিয়ার মুরাদনগর গ্রামের ওই ব্যক্তি পেশায় একজন ফার্নিচার ব্যবসায়ী। তার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘আমি নমুনা দিয়েছি দুই তারিখ। আজকে সকাল পর্যন্ত জানতাম না যে আমার রিপোর্ট পজিটিভ। জানি না বলেই শহরে ফার্নিচার কিনতে আসছি। এখন শহরে আমার এক আত্মীয়ের খালি বাসায় আমি আইসোলেশনে চলে যাব।’

তিনি শহরে আসার পথে গণপরিবহন ব্যবহার করেছেন বলে জানিয়েছেন।

উপসর্গ থাকার পরও আইসোলেশনে না থেকে আপনি ঘুরাঘুরি করছিলেন কেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আইসোলেশনে থাকতে হয় সেটাই জানতেন না।’