মঙ্গলবার, ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ ইং, সকাল ৭:৩১

আমতলীর জীবিত অজিফা বেগম ভোটার তালিকায় মৃত!

নিজস্ব প্রতিবেদক::

আমতলী উপজেলার হলদিয়া ইউনিয়নের উত্তর টেপুরা গ্রামের বিধবা অজিফা বেগম (৬১) বাস্তবে জীবিত হয়েও ভোটার তালিকায় তিনি মৃত। ভোটার তালিকায় মৃত্যু থাকায় অজিফা বিধবা ভাতার জন্য আবেদন কতে পারছেন না। মঙ্গলবার বিধবা ভাতার জন্য আবেদন করতে গিয়ে ভোটার তালিকায় তার নাম মৃত্যু দেখতে পান। মৃত্যু শুনে কান্নায় ভেঙ্গে পরেন বৃদ্ধা অজিফা।
জানাগেছে, আমতলী উপজেলার হলদিয়া ইউনিয়নের উত্তর টেপুরা গ্রামের অজিফা বেগমের (৬১) স্বামী এছব সিকদার ২০ বছর পুর্বে দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। স্বামীর মৃত্যুর পর অজিফা বেগম অন্যের বাড়ীতে ঝিয়ের কাজ করে দুই ছেলেকে বড় করে তোলেন। ছেলেরা বিয়ে করে অন্যত্র চলে যাওয়ায় অতি কষ্টে দিনাতিপাত করছেন অজিফা। বয়সের ভারে এখন আর ঝিয়ের কাজ করতে পারছেন না তিনি। বিধবা ভাতায় নাম অন্তর্ভুক্ত করতে মঙ্গলবার হলদিয়া ইউনিয়ন তথ্য সেবা কেন্দ্রে অনলাইনে আবেদন করতে যান। অনলাইনে আবেদন করতে গিয়ে দেখেন ভোটার তালিকায় অজিফা বেগম মৃত। ভোটার তালিকায় মৃত্যু শুনে অজিফা কান্নায় ভেঙ্গে পরেন।

অজিফা বেগম কান্নাজনিত কন্ঠে বলেন, ‘মুই গরীব মানু। মানের বাড়ী কাম হইর‌্যা খাই। এ্যাহন ভাতার টাহার লইগ্যা আবেদন হরতে আইয়্যা হুনি ভোডার তালিকায় মুই মারা গেছি। মুই মরার আগেই মোরো মাইর‌্যা হালাইছে। এ্যাহন ভিক্ষা হরা ছাড়া মোর কোন উপায় নাই”।
হলদিয়া ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ আসাদুজ্জামান মিন্টু মল্লিক বলেন, অজিফা বেগম জীবিত। ভোটার তালিকায় তাকে মৃত দেখানো হচ্ছে এটা খুবই দুখজনক। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে তার ভোটার তালিকা সংশোধন করা না গেলে তিনি বিধবা ভাতার জন্য আবেদন করতে পারবে না। আবেদন করতে না পারলে একজন দরিদ্র অজিফা তার অধিকার থেকে বঞ্চিত হবে। আশা করি নির্বাচন অফিস দায়িত্ব নিয়ে আগামী ১০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে অজিফার ভোটার তালিকা সংশোধন করে দেওয়ার উদ্যোগ নেবেন।
আমতলী উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোঃ তরিকুল ইসলাম বলেন, জীবিত অজিফাকে ভোটার তালিকায় মৃত দেখানো এটা হয়তো ভুলক্রমে হয়েছে। অজিফার জীবিত থাকার প্রমাণসহ আবেদন করলে অল্প সময়ের মধ্যে সংশোধন করে দেওয়া হবে।