মঙ্গলবার, ২৩শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, সকাল ১১:১০
শিরোনাম :
নেছারাবাদ সাগরকান্দার কুখ্যাত ডাকাত রুবেল খুলনায় আটক উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত ডাক্তারের অবহেলায় নবজাতক মৃত্যুর অভিযোগ জেলা তথ্য অফিসের আয়োজনে নারী সমাবেশ ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষ‍্যে নেছারাবাদ উপজেলায় মতবিনিময় সভা বরিশালে যথাযোগ্য মর্যাদায় শহিদ দিবসের কর্মসূচি প্রাণ বাঁচাতে বাংলাদেশে বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তে আশ্রয় নিল ১৪ মিয়ানমার সেনা জীবন্ত মানুষকে পুড়িয়ে মারার দল বিএনপি: শেখ ফজলে শামস পরশ বিআইডব্লিউটিএ’র গুদামের আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে সার্ভিসের সাতটি ইউনিট অগ্রণী ব্যাংক ৯৭৫ তম রায়পুরা শাখার উদ্বোধন আসন্ন রায়পুরা পৌরসভা নির্বাচনে ২নং ওয়ার্ডে মোঃ বাহাউদ্দীনকে কাউন্সিলর করতে চান “ওয়ার্ডবাসী”

পর্যটন এলাকা কুয়াকাটায় হোটেল বন্ধ: খাবার না পেয়ে ভোগান্তির শিকার দর্শনার্থীরা

ডেক্স রিপোর্ট::

পটুয়াখালীর কুয়াকাটায় খাবার হোটেল মালিক সমিতির ডাকা ধর্মঘটে সকাল থেকেই বন্ধ রয়েছে সব ধরনের খাবার হোটেল-রেস্তোরাঁ। এতে চরম বিপাকে পড়েছেন পর্যটকরা। বুধবার (১৭ আগস্ট) সকাল থেকেই কুয়াকাটায় আগত পর্যটকরা কোথাও খাবার না পেয়ে চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন।

মুন্সিগঞ্জ থেকে আগত আফরোজা নামের এক পর্যটক জাগো নিউজকে জানান, সকালে পরিবারসহ কুয়াকাটায় আসলাম। কিন্তু এখানে খাবার হোটেলের ধর্মঘট চলছে তাতো জানি না। এখন আবার ফিরে যাওয়া ছাড়া কোনো উপায় দেখছি না।

ঢাকা থেকে আসা আরেক পর্যটক রফিক জানান, ছোট বাচ্চা নিয়ে সকাল থেকে খাবার খুঁজছি কিন্তু পাচ্ছি না। এমনটা বুঝলে কুয়াকাটায় আসতাম না।

মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) রাত ১০টায় খাবার হোটেলে বারবার মোবাইল কোর্ট পরিচালনায় ক্ষুব্ধ হয়ে অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধের ঘোষণা দেয় কুয়াকাটা খাবার হোটেল মালিক সমিতি।

সমিতির সভাপতি সেলিম মুন্সি জানান, একটি হোটেল দুই-তিন দিন পরপর মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে আমাদের হয়রানি করা হচ্ছে। তাই আমরা হোটেল বন্ধ করতে বাধ্য হয়েছি।

এ ব্যাপারে কুয়াকাটা বিচ ম্যানেজমেন্ট কমিটির সদস্য সচিব ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আবু হাসনাত মোহাম্মদ শহীদুল হক জানান, নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিত করতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হচ্ছে। তারপরও তারা (হোটেল কর্তৃপক্ষ) সঠিক খাবার পরিবেশন করছে না। কিন্তু হঠাৎ করে প্রশাসনের কারো সঙ্গে বৈঠক না করে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়ায় পর্যটকরা ভোগান্তির স্বীকার হচ্ছে। আমরা তাদের সঙ্গে আলোচনার চেষ্টা করছি। পর্যটকদের স্বার্থে যাতে ধর্মঘট প্রত্যাহার করা হয় সেই ব্যবস্থা করা হবে।

সবাইকে পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা