বৃহস্পতিবার, ১৮ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, বিকাল ৪:৪৫
শিরোনাম :
নেছারাবাদ সাগরকান্দার কুখ্যাত ডাকাত রুবেল খুলনায় আটক উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত ডাক্তারের অবহেলায় নবজাতক মৃত্যুর অভিযোগ জেলা তথ্য অফিসের আয়োজনে নারী সমাবেশ ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষ‍্যে নেছারাবাদ উপজেলায় মতবিনিময় সভা বরিশালে যথাযোগ্য মর্যাদায় শহিদ দিবসের কর্মসূচি প্রাণ বাঁচাতে বাংলাদেশে বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তে আশ্রয় নিল ১৪ মিয়ানমার সেনা জীবন্ত মানুষকে পুড়িয়ে মারার দল বিএনপি: শেখ ফজলে শামস পরশ বিআইডব্লিউটিএ’র গুদামের আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে সার্ভিসের সাতটি ইউনিট অগ্রণী ব্যাংক ৯৭৫ তম রায়পুরা শাখার উদ্বোধন আসন্ন রায়পুরা পৌরসভা নির্বাচনে ২নং ওয়ার্ডে মোঃ বাহাউদ্দীনকে কাউন্সিলর করতে চান “ওয়ার্ডবাসী”

মৌসুমি বায়ুর সক্রিয়তায় দেশের একদিকে অতিভারী বৃষ্টি, অন্যদিকে তীব্র তাপপ্রবাহ

 বিজলী ডেস্ক::

মৌসুমি বায়ুর সক্রিয়তায় দেশের সিলেট অঞ্চলে অতিভারী বৃষ্টি হচ্ছে। অন্যদিকে বৃষ্টিহীনতায় দেশের তিন জেলায় তীব্র তাপপ্রবাহ বইছে। তবে ভারী বৃষ্টি বৃহস্পতিবারও অব্যাহত থাকতে পারে। একই সঙ্গে তাপপ্রবাহও অব্যাহত থাকতে পারে, তবে বৃষ্টি বেড়ে তাপপ্রবাহের আওতা কিছুটা কমতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। আবহাওয়া দপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, বুধবার সকাল ৬টা থেকে বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় সিলেটে ২৭২ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। এটিই গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশের মধ্যে সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত। এ সময়ে রাজশাহী ও বরিশাল বিভাগে কোনো বৃষ্টি হয়নি। অন্যদিকে বৃহস্পতিবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪০ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছিল রাজশাহীতে। খুলনা ও যশোরেও তাপমাত্রার পারদ ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছুঁয়েছে। ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৬ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঢাকায়ও মৃদু তাপপ্রবাহ বইছে। দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ু (বর্ষা) আরও আগেই সারাদেশে বিস্তার লাভ করেছে, এর প্রভাবেই বৃষ্টি হচ্ছে। তবে ক্যালেন্ডারের হিসাব ধরে আজ বৃহস্পতিবার আষাঢ়ের প্রথম দিন, শুরু হলো দ্বিতীয় ঋতু বর্ষাকাল। আজ সকাল থেকেই ঢাকার আকাশ মেঘলা। গত কিছুদিন ধরে দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চল ও দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে বৃষ্টির প্রবণতা বেশি। বৃষ্টি কম উত্তরাঞ্চলে। আবহাওয়াবিদ মো. শাহীনুল ইসলাম জানান, পশ্চিমা লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ থেকে বাংলাদেশের দক্ষিণপশ্চিমাঞ্চল হয়ে উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের ওপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে মাঝারি অবস্থায় রয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাস তুলে ধরে এ আবহাওয়াবিদ বলেন, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায়; ঢাকা ও বরিশাল বিভাগের অনেক জায়গায়; রংপুর ও খুলনা বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং রাজশাহী বিভাগের দু’এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝড়ো হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেইসঙ্গে ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টি হতে পারে। এ সময়ে রংপুর, রাজশাহী ও খুলনা বিভাগে দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে এবং দেশের অন্যত্র তা সামান্য কমতে পারে। সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে বলেও জানান শাহীনুল ইসলাম। তিনি আরও বলেন, রাজশাহী, যশোর এবং খুলনা জেলার ওপর দিয়ে তীব্র তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। এছাড়া ঢাকা ও বরিশাল বিভাগসহ রাজশাহী ও খুলনা বিভাগের অবশিষ্টাংশের ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা কিছু কিছু জায়গা থেকে প্রশমিত হতে পারে। এর আগে বুধবার সন্ধ্যায় ভারী বর্ষণের সতর্কবাণীতে আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে বুধবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কোথাও কোথাও ভারী (৪৪ থেকে ৮৮ মিলিমিটার) থেকে অতিভারী (৮৯ মিলিমিটারের বা এর বেশি) বর্ষণ হতে পারে।

সবাইকে পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা