রবিবার, ১৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ভোর ৫:৪১
শিরোনাম :
হেলমেট পরিধানে অনীহাই ঝুঁকিতে বরিশালের ৯০ ভাগ সংবাদকর্মীর প্রাণ কাউখালী উপজেলা নির্বাচনে আনারস প্রার্থীর কর্মীদের মারধর ও পুলিশ হয়রানির অভিযোগ ল’ এসোসিয়েশন অফ বাংলাদেশ (ল্যাব) এর বরিশাল জেলার কমিটি গঠন বন বিভাগের জমিতে গড়ে ওঠা অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ বর্তমানে চাকরিতে প্রবেশের বয়স ৩০ থেকে বাড়োনোর প্রস্তাব নেছারাবাদ সাগরকান্দার কুখ্যাত ডাকাত রুবেল খুলনায় আটক উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত ডাক্তারের অবহেলায় নবজাতক মৃত্যুর অভিযোগ জেলা তথ্য অফিসের আয়োজনে নারী সমাবেশ ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষ‍্যে নেছারাবাদ উপজেলায় মতবিনিময় সভা বরিশালে যথাযোগ্য মর্যাদায় শহিদ দিবসের কর্মসূচি

সৈয়দা ফাতেমা মমতাজ মলি বরিশালে সংরক্ষিত মহিলা আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী

বিশেষ প্রতিনিধি (আকাশ ইসলাম) ::

চলতি মাসেই সংসদে বসতে যাচ্ছেন আরও নতুন ৫০ এমপি। সংরক্ষিত নারী আসনে বসবেন তারা। এরমধ্যে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী আওয়ামী লীগের কোটায় (স্বতন্ত্রসহ) থাকছেন ৪৮ জন এমপি। ইতিমধ্যে দলীয় মনোনয়ন বিক্রি কার্যক্রম শেষ করেছেন আওয়ামী লীগ।

আর বরিশাল বিভাগ থেকে মোট ৯৬জন নারী নেত্রী আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন। এর মধ্যে আলোচনায় রয়েছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সদস্য ও বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ আনিছুর রহমানের মেয়ে সৈয়দা ফাতেমা মমতাজ মলি। বরিশাল নগরীর আমানাতগঞ্জ, নিউভাটিখানা রোড, ৪ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা তিনি। রাজনৈতিক পরিবারে বেড়ে ওঠা ফাতেমা মমতাজ মলি নিজের পিতার মতই দেশ সেবাই নিয়োজিত রাখতে চান। ফলে শিক্ষা জীবন থেকেই ছিলেন আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে সক্রিয়।

২০০০ সাল থেকে ২০০৮ সালের আওয়ামী লীগের সকল আন্দোলনে রাজপথে পালন করেছেন সক্রিয় ভূমিকা। বর্তমানে তিনি বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের সংগঠন উত্তরাধিকারের যুগ্ম আহবায়ক পদে দায়িত্ব পালন করলেও ২০০০ সাল বাকসুর গঠিত কমিটিতে দায়িত্ব পালন করেন ছাত্রী বিষয়ক সম্পাদিকা পদে, বিএম কলেজ শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদে, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় অফিসার্স এসোসিয়েশন সাবেক সাধারণ সম্পাদক পদেও ছিলেন তিনি। আলাপকালে সৈয়দা ফাতেমা মমতাজ মলি বলেন, ছোট বেলা থেকেই পিতার কাছে দেশ স্বাধীনতার গল্প শুনেছি।

সাধারণ মানুষের কল্যায়নের জন্য নিজেকে নিয়োজিত রাখার অনুপ্রেরণা জুগিয়েছেন আমার বাবা। আর ছাত্র জীবনেই দলের সাথে সম্পৃক্ত থেকে পালন করেছি বিভিন্ন দায়িত্ব। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মানে “রূপকল্প ভিশন-২০৪১” বাস্তবায়নের জন্য তার পাশে একজন ক্ষুদ্র কর্মী হিসেবে থাকতে চাই। আমি আশাবাদী আমাদের দলীয় সভানেত্রী আমাকে দলীয় মনোনয়ন দিবেন।

সবাইকে পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা