রবিবার, ১৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ভোর ৫:৪২
শিরোনাম :
হেলমেট পরিধানে অনীহাই ঝুঁকিতে বরিশালের ৯০ ভাগ সংবাদকর্মীর প্রাণ কাউখালী উপজেলা নির্বাচনে আনারস প্রার্থীর কর্মীদের মারধর ও পুলিশ হয়রানির অভিযোগ ল’ এসোসিয়েশন অফ বাংলাদেশ (ল্যাব) এর বরিশাল জেলার কমিটি গঠন বন বিভাগের জমিতে গড়ে ওঠা অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ বর্তমানে চাকরিতে প্রবেশের বয়স ৩০ থেকে বাড়োনোর প্রস্তাব নেছারাবাদ সাগরকান্দার কুখ্যাত ডাকাত রুবেল খুলনায় আটক উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত ডাক্তারের অবহেলায় নবজাতক মৃত্যুর অভিযোগ জেলা তথ্য অফিসের আয়োজনে নারী সমাবেশ ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষ‍্যে নেছারাবাদ উপজেলায় মতবিনিময় সভা বরিশালে যথাযোগ্য মর্যাদায় শহিদ দিবসের কর্মসূচি

মুলাদী বন্দরের টিনেরবেড়া কেটে ৪ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে চুরি

মুলাদী প্রতিনিধিঃ

মুলাদী বন্দরের টিনের বেড়া কেটে ৪টি দোকানে চুরির ঘটনা ঘটেছে। জানাগেছে, গত ৫ অক্টোবর সোমবার দিবাগত রাতে মুলাদী বন্দরের পৌর সুপার মার্কেট সংলগ্ন বীরমুক্তিযোদ্ধা ডাঃ আব্দুর রাজ্জাক ভুলু সেতুর পশ্চিম পার্শ্বের একই সারির ৪টি মুদি দোকানে গভীর রাতে দোকানের পিছনের টিন কেটে ইউনুস হাওলাদারের নোমান স্টোর, সিরাজ হাওলাদারের মুলাদী স্টোর, বায়েজিদ স্টোর ও মোবারক হোসেনর মিলন স্টোরে চুরি করে চোর চক্র। মিলন স্টোরের পিছনের দিকের টিন কেটে দোকানে প্রবেশ করে চোর চক্র, পরে একই সাড়িতে থাকা আরও তিনটি দোকানের টিন কেটে প্রবেশ করে চুরি করে পালিয়ে যায়। নোমান স্টোরের মালিক ইউনুস হাওলাদার জানান, তার দোকানে থাকা নগদ ৯হাজার টাকা নিয়ে যায় চোর চক্র, সিরাজ হাওলাদারের মুলাদী স্টোর থেকে নগদ ১২হাজার টাকা, বায়জিদ স্টোরের নগদ ১৪হাজার টাকা ও মিলন স্টোরের প্রায় ১৫হাজার নগদ টাকা ও মালামাল নষ্ট করে পালিয়ে যায় চোর চক্র। মুলাদী থানা পুলিশ ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেন। বিগত ২/৩ বছর যাবৎ প্রায়ই মুলাদী বন্দরে চুরি ডাকাতি ঘটতে থাকে। এব্যাপারে বন্দর ব্যবসায়ীরা জানান আমার আমাদের ব্যবসা প্রতিষ্টান নিয়ে আতংকে আছি, যে কোন সময় আমাদের ব্যবসা প্রতিষ্টানে চুরি ডাকাতির ঘটনা ঘটতে পারে, আমার ব্যবসায়ীরা অসহায় হয়ে পড়ছি। বন্দরে কি ভাবে ব্যবসা করব কিছু দিন পরপর এ ধরনের চুরি ডাকাতি হলে। মুলাদী বন্দরে ৯জন পাহাদার থাকা স্বত্বেও কিভাবে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের টিনের বেড়া কেটে চুরি হচ্ছে, তা আমরা বুঝতে পারছি না। বার বার চুরি ডাকাতির পরেও সুষ্টু তদন্তে কোন প্রতিকার পাওয়া যাচ্ছে না। এবিষয়ে মুলাদী থানার অফিসার ইনচাজ ফয়েজ আহমেদ ঘটনা স্থল পরিদর্শন কওে দ্রæত আইনী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সবাইকে পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা