মঙ্গলবার, ২৩শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, সকাল ১০:১৭
শিরোনাম :
নেছারাবাদ সাগরকান্দার কুখ্যাত ডাকাত রুবেল খুলনায় আটক উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত ডাক্তারের অবহেলায় নবজাতক মৃত্যুর অভিযোগ জেলা তথ্য অফিসের আয়োজনে নারী সমাবেশ ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষ‍্যে নেছারাবাদ উপজেলায় মতবিনিময় সভা বরিশালে যথাযোগ্য মর্যাদায় শহিদ দিবসের কর্মসূচি প্রাণ বাঁচাতে বাংলাদেশে বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তে আশ্রয় নিল ১৪ মিয়ানমার সেনা জীবন্ত মানুষকে পুড়িয়ে মারার দল বিএনপি: শেখ ফজলে শামস পরশ বিআইডব্লিউটিএ’র গুদামের আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে সার্ভিসের সাতটি ইউনিট অগ্রণী ব্যাংক ৯৭৫ তম রায়পুরা শাখার উদ্বোধন আসন্ন রায়পুরা পৌরসভা নির্বাচনে ২নং ওয়ার্ডে মোঃ বাহাউদ্দীনকে কাউন্সিলর করতে চান “ওয়ার্ডবাসী”

প্রথম সেঞ্চুরি পরিবারকে উৎসর্গ করলেন মিরাজ

অনলাইন ডেস্ক::

টেস্টে ৮ নম্বরে নামা চতুর্থ ব্যাটসম্যান হিসেবে সেঞ্চুরি তুলেছেন মিরাজ। ক্যারিয়ারের প্রথম শতকটা উৎসর্গ করেছেন পরিবারকে। সিনিয়র তামিম-মুশফিক-সাকিবদের দেওয়া পরামর্শ আত্মবিশ্বাস জুগিয়েছে, বললেন এই স্পিন অলরাউন্ডার। আর টেস্টের তৃতীয় দিনটাকে মহাগুরুত্বপূর্ণ মানছেন ক্রেইগ ব্রাথওয়েট। উইকেটে টিকে থাকলে এখনও ঘুরে দাঁড়ানো সম্ভব মনে করেন ক্যারিবিয়ান অধিনায়ক।

ছোট্ট একটা পরিসংখ্যান দিয়ে শুরু করা যাক। দেশের ক্রিকেটে ৮ নম্বরে নেমে টেস্ট সেঞ্চুরি হাঁকানোর তালিকাটা খুব বেশি লম্বা নয়। পাইলট, মাহমুদউল্লাহ আর সোহাগ গাজীর পর চতুর্থ ব্যাটসম্যান হিসেবে এই কীর্তি গড়লেন মেহেদী হাসান মিরাজ। সিনিয়র ক্যারিয়ারে প্রথম শতকটা কাকে উৎসর্গ করবেন?

মেহেদী হাসান মিরাজ বলেন, ‘আমার মা, বাবা, আমার সন্তান সবাই খেলার আগে দোয়া করে যেন ভালো করি। অবশ্যই পরিবারকে উৎসর্গ করব।’

লোয়ার অর্ডারে এমন ইনিংস খেলা সহজ নয়। তবে মুশফিক-তামিম-সাকিবরা দেওয়া মন্ত্রের শক্তিতে খেলেছেন ভয়ডরহীন হয়ে।

মিরাজ জানান, ‘অনুশীলনে মুশফিক ভাই, তামিম ভাই টিপস দিয়েছে। সেগুলো করার চেষ্টা করেছি। ড্রেসিং রুমে সিনিয়ররা এভাবে সাহস জোগালে আমার মতো জুনিয়রদের বুক আরও চওড়া হয়। নিজের সর্বোচ্চ দিয়ে চেষ্টা করতে পারি।’

দুটো দিন শেষ হলেও উইকেটে এখনও বাড়তি টার্নের দেখা পাননি স্পিনাররা। এমন উইকেটে দুই পেসার দেখতে পারলে খুশি হতেন অনেক ক্রিকেট বিশেষজ্ঞ। তবে এমনটা হলে দুই অফ স্পিনারের মধ্যে ছিটকে যেতেই পারত। খড়গে পড়তে পারতেন মিরাজও। সেঞ্চুরিটা কি জায়গা পাকা করল?

তিনি বলেন, ‘এই ম্যাচে সেঞ্চুরি করেছি, এরপরে নাও করতে পারি। এক ম্যাচে উইকেট পেলে পরের ম্যাচে নাও পেতে পারি। তবে টিম কম্বিনেশন মুখ্য। সে জন্য সব সিদ্ধান্ত মেনে নেওয়া যায়। কেননা টিম সবার আগে।’

দিন শেষে মিরাজ হাস্যোজ্জ্বল হলেও চিন্তার ভাঁজ স্পষ্ট ছিল প্রতিপক্ষের ক্যাপ্টেনের কপালে। ক্রেইগ জানেন তৃতীয় দিনটা ভাগ্য গড়ে দিতে পারে ম্যাচের। তবে উইকেটের আচরণ এখনও সাহসের প্রদীপটাকে জ্বালিয়ে রাখছে।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রেইগ ব্রাথওয়েট বলেন, ‘বাংলাদেশ ভালো ব্যাটিং করেছে। বোলিংও নিয়ন্ত্রিত। তবে উইকেটটা ব্যাটিংয়ের জন্য ভালো। বল খুব বেশি টার্ন করছে না। ভালো কিছু পার্টনারশিপ গড়তে হবে আমাদের। ওদের রানের কাছাকাছি পৌঁছানো বা লিড নেয়াও অসম্ভব নয়। তবে এটার জন্য আমাদের উইকেটে টিকে থাকতে হবে। কালকের দিনটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।’

জুনিয়র মিরাজের একটা ঝলক তার অলরাউন্ডার তকমাকে শক্ত করবে তাতে কোনো সন্দেহ নেই। আর প্রতিষ্ঠিত ব্যাটসম্যানদের ছাপিয়ে মিরাজের সেঞ্চুরিটা নিশ্চয় বড় স্বপ্ন দেখার সাহস জোগাবে টাইগারদেরও।

সবাইকে পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা