বৃহস্পতিবার, ২৮শে জানুয়ারি, ২০২১ ইং, রাত ৪:২১

৪র্থ বারের মতো প্রায় ২ শতাধিক কর্মহীন পরিবারের পাশে দাড়ালেন ১নং ওয়ার্ড যুবলীগ কর্মী সবুজ মৃধা

বিজলী ডেক্স:  বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া মহামারী করোনা ভাইরাসে গত ৮ মার্চ প্রথম বাংলাদেশে করোনা আক্রান্ত রোগী সনাক্ত হয়। সমগ্র দেশ এখন লকডাউনের আওতায়। ফলে কর্মহীন হয়ে পড়ছেন খেটে খাওয়া মানুষগুলো। এহেন পরিস্থিতিতে বরিশালের জননন্দিত মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহর পক্ষ থেকে নগরীতে প্রায় ৫৩ হাজার পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করা হয়েছে। পাশাপাশি আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগের অনেক নেতাকর্মী নিজস্ব অর্থায়নে অসহায় মানুষগুলোকে ত্রাণ ও নগদ অর্থ দিয়ে সহযোগিতা করছেন। বরিশাল মহানগর যুবলীগ (১নং ওয়ার্ড) কর্মী মোঃ সবুজ মৃধা নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় ৪র্থ বারের মতো প্রায় ২ শতাধিক পরিবারের মাঝে ত্রাণ ও নগদ অর্থ দিয়েছেন।

স্থানীয়দের সাথে আলাপকালে জানা গেছে, বরিশাল মহানগর যুবলীগ কর্মী মোঃ সবুজ মৃধা তার নিজস্ব উদ্যোগে করোনা পরিস্থিতিতে কর্মহীন খেটে খাওয়া মানুষের পাশে দাড়িয়েছেন। প্রথম পর্যায়ে তিনি ১৭৪টি পরিবারের মাঝে ত্রাণ (চাল, ডাল, আলু, পিয়াজ, তেল, লবন ও একটি সাবান) দিয়েছেন। দ্বিতীয় পর্যায়ে দেড়শ পরিবারের মাঝে নগদ তিনশত টাকা করে আর্থিক সহযোগিতা করেছেন। তৃতীয়বারে তিনশ পরিবারের মাঝে নগদ তিনশত টাকা করে আর্থিক সহযোগিতা করেছেন। সর্বশেষ বুধবার তিনি নগর‌ীর ১নং ওয়ার্ডস্থ উত্তর কাউনিয়ার বিভিন্ন মহল্লায় ঘুড়ে ঘুড়ে ২শতাধিক কর্মহীন পরিবারের মাঝে নগদ তিনশত টাকা করে আর্থিক দেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন- ১নং শ্রমিক লীগের সাধারন সম্পাদক জালাল আহম্মেদ, আবুল হোসেন, ছাত্রলীগ নেতা শাহারিয়ার হাসান হৃদয়, নাজমুল হোসেন রাহাত, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা রফিকুল ইসলাম সাজু, সাংবাদিক এম.কে রানাসহ আওয়ামী লীগের অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীবৃন্দ।

রহমান নামের একজন শ্রমিক জানান, সবুজ মৃধা নেতা না হয়েও দিনমজুরদের পাশে দাড়িয়েছেন। শুধু আমি নই, আমার মতো অনেক শ্রমিককেই সবুজ মৃধা ত্রাণ ও নগদ অর্থ দিয়েছেন।

এ ব্যাপারে মহানগর যুবলীগ কর্মী মোঃ সবুজ মৃধা বলেন, দক্ষিণ বাংলার সিংহ পুরুষ আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ’র পক্ষে এক সময় তার পিতা তৈয়ব আলী মৃধাও কাজ করেছেন। তারই ধারাবাহিকতায় তিনি নগর পিতা সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ’র পরিবারের মঙ্গল কামনায় অসহায় খেটে খাওয়া মানুষগুলোর পাশে দাড়িয়েছেন তিনি।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, নেতা বা নেতৃত্ব ছাড়াও জনগণের সেবা করা যায়। অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আওয়ামীলীগকে যারা ভালবাসেন তারা যে যার অবস্থান থেকে এগিয়ে আসলে ওয়ার্ডের কোন মানুষ অভুক্ত থাকবে না। তিনি তার এ কার্যক্রম অব্যাহত রাখবেন বলেও জানান।