বৃহস্পতিবার, ৩০শে নভেম্বর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, রাত ৮:৫৯
শিরোনাম :
প্রধান মন্ত্রীর নির্দেশই সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ বরিশাল-৫ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হচ্ছেন..! দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন দেখতে চান রয়টার্সের সাংবাদিকসহ ৮৭ বিদেশি নির্বাচনের আগেই জাতীয় পার্টিতে ভাঙন দেখা দিচ্ছে…! বরিশাল বিভাগীয় সাংস্কৃতিক উৎসব ১৭ ডিসেম্বর আ’লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার বরিশাল-০৫ আসনের নৌকার মাঝি হলেন কর্নেল জাহিদ ফারুক বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আ.লীগের সংসদীয় মনোনয়ন বোর্ডের সভা বিভাগীয় কমিশনার মোঃ শওকত আলীর সভাপতিত্বে আইন-শৃঙ্খলা এবং সমন্বয় কমিটির সভা দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি) ১৫ লাখ টাকার বই বিক্রি, বিভাগীয় বইমেলার সমাপ্তি বরিশালে বিসিসি নতুন মেয়রের অভিষেক অনুষ্ঠান, নগরবাসীকে উন্নত সেবা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি

বরিশালে শাটার বন্ধ করে ৩০ জন ক্রেতা সমাগম, ‘বৈশাখী’ সিলগালা

অনলাই ডেক্স:: একাধিক নিষেধাজ্ঞা অমান্য ও শাটার বন্ধ অবস্থায় ভেতরে ২৫-৩০ জন ক্রেতা সমাগম করায় বরিশাল নগরীর গির্জা মহল্লার কাপড়ের দোকান ‘বৈশাখী’ সিলগালা ও দোকান মালিককে ৩০ হাজার টাকা জরিমান করেছে দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। প্রতিষ্ঠানটিকে এরআগে এমন অভিযোগে কয়েক দফা সতর্ক করে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু শুক্রবারও একই চিত্র পরিলক্ষিত হওয়ায় গির্জা মহল্লার পশ্চিমপ্রান্ত বিবির পুকুরের কোনের এই প্রতিষ্ঠানটিকে তালাবদ্ধ করে দেন বরিশাল জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. জিয়াউর রহমান ও আতাউর রাব্বী।

এছাড়াও অপ্রয়োজনীয়ভাবে দোকান খোলা রাখায় ও ঈদ কেনাকাটায় স্বাস্থ্যসুরক্ষা বিধি অমান্য করায় আরও ৫ ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান ও ১৪ ক্রেতাকে জরিমানা করা হয়েছে। শুক্রবার (২২ মে) সকালে নগরীর কাটপট্টি, চকবাজার ও গির্জা মহল্লাসহ বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করেন জিয়াউর রহমান।

প্রশাসন ও ব্যবসায়ী সূত্রে জানা যায়- করোনা রোধে সরকারের দেওয়া ‘লকডাউন’ সকল ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত থাকলেও গির্জা মহল্লা এলাকার পোষাক বিক্রয় প্রতিষ্ঠান ‘বৈশাখী’ এক ধরনের চোর-পুলিশ খেলছিল। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর গাড়ি দেখলে প্রতিষ্ঠানটি শাটার বন্ধ রেখে ভেতরে ক্রেতা সমাগম ঘটিয়ে বিক্রি করে। গত কয়েকদিনে এজন্য প্রতিষ্ঠান মালিককে একাধিকার সতর্ক করে দেওয়া হয়েছিল, কিন্তু তিনি শোনেননি। শুক্রবার দুপুরের পরে জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযানের প্রাক্কালে একই দৃশ্য দেখা যায়। এতে প্রতিষ্ঠানটিকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানার পাশাপাশি সিলগালা করে দেওয়া হয়েছে।

আদালত সূত্রে জানা গেছে- অভিযানকালে স্ত্রী, সন্তানসহ পরিবারের সবাইকে সঙ্গে করে কেনাকাটা করতে বের হয়ে করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি বৃদ্ধি করায় ১৪ ক্রেতাকে সংক্রামক রোগ (প্রতিরোধ, নিয়ন্ত্রণ ও নির্মূল) আইনের ২৫ (২) ধারায় ৫০০ টাকা করে মোট ৭ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া নগরের গির্জা মহল্লা, চকবাজার, পুলিশ লাইন ও ফলপট্টি এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৫ দোকানকে ১৩ হাজার ৫শ’ টাকা জরিমানা করেন আরেক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আতাউর রাব্বী। এসব অভিযানে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় র‌্যাব-৮-এর একটি টিম ও কোতোয়ালি মডেল থানাপুলিশের একটি টিম সহায়তা করে।

ঈদের কেনাকাটায় সামাজিক দূরত্ব রক্ষা ও স্বাস্থ্যবিধি পরিপালন নিশ্চিত করতে জেলা প্রশাসনের এ অভিযান চলমান থাকবে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক এস এম অজিয়র রহমান।’

সবাইকে পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা