শনিবার, ৫ই ডিসেম্বর, ২০২০ ইং, রাত ১২:০০
শিরোনাম :
হঠাৎ করে এলপিএল ছেড়ে দেশে ফিরে গেলেন আফ্রিদি…! যুবলীগ ও হেফাজতে ইসলাম মুখোমুখি, নবীনগরে পরিস্থিতি কিছুটা উত্তপ্ত রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে স্থানান্তর করা হবে এ মাসেই ঝালকাঠিতে রহস্যজনক অগ্নীকান্ড, একুশে টিভির জেলা প্রতিনিধি আজমীরের বাসভবনে…! গ্রামকে শহরে রূপান্তরিত করার লক্ষে মুলাদী সদর ইউনিয়নে ওয়ার্ড সভায় প্রধান অতিথি ইউপি চেয়ারম্যান কামরুল আহসান বিশ্বে এখন করোনায় আতংকিত একদিনেই ১২ হাজারের বেশি মানুষের প্রাণহানি..! বাংলাদেশ সাংবাদিক ও সংবাদপত্র ঐক্য পরিষদ, কেন্দ্রীয় কমিটির গঠন ! সভাপতি রেদওয়ান সিকদার রনি ও সাধারণ সম্পাদক আবুবকর সিদ্দীক বরিশাল বিএম কলেজের নতুন অধ্যক্ষ জিয়াউল হক মুলাদীতে প্রাকৃতিক দূর্যোগের কারণে ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে বীজ ও রাসায়নিক সার বিতরন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি উপজেলা চেয়ারম্যান মিঠু খান বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে চলচ্চিত্র ‘একজন মহান পিতা’

কুয়াকাটা পর্যটকদের ভীড়ে মুখরিত

পটুয়াখালী  বিশেষ প্রতিনিধি ::

পর্যটকদের ভীড়ে মুখরিত কুয়াকাটা সাগর সৈকত।করোনা পরিস্থীতির কারনে প্রায় দুই মাস আগে কুয়াকাটা পর্যটকদের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হলে আজকেই সবচেয়ে বেশী পর্যটকদের আগমন ঘটেছে কুয়াকাটা সাগর সৈকতে।
কুয়াকাটা হোটেল মোটেল ওর্নাস এসাসিয়েশনের সাধারন সম্পাদক মোতালেব শরীফ জানান,দীর্ঘদিন পরে আজ কুয়াকাটার হোটেল গুলির অধিকাংশ রুমই বুকিং হয়ে গেছে ইতোমধ্যে।
সাপ্তাহিক দুইদিন ছুটির সাথে একদিন বেশী ছুটি পাওয়ায় আজ সকাল থেকেই কুয়াকাটায় পর্যটকদের আগমন ঘটতে থাকে। কথা হয় কুয়াকাটায় ঘুরতে আসা পর্যটক শফিকুর রহমান ও সালাউদ্দিনের সাথে তারা জানান ,কুয়াকাটার পরিবেশ এখন খুবাি ভাল লাগছে,তবে হোটেলে স্বাস্থ্য বিধী মানা হলেও বীচে কেই স্বাস্থ্য বিধী তথা মাস্ক ব্যবহার করছে না।
কুয়াকাটার হোটেল বনানী প্যালেসের ম্যানেজার আবদুল্লাহ আল পিকু জানান, তাদের হোটেলের অধিকাংশ রুমই বুকিং হয়ে গেছে।তিনি জানান,হোটেলে প্রবেশকারীন বোর্ডারদের পুরোপুরি স্বাস্থ্যবিধী মেনে হোটেলে প্রবেশ করতে দেয়া হচ্ছে,এমনকি হোটেল চত্বরে পর্যটকদের গাড়ী প্রবেশ করলে গাড়ীর চাকায়ও আমরা স্প্রের ব্যবস্থা করছি।
কুয়াকাটা টুরিস্ট পুলিশের পরিদর্শক বদরুল কবির জানান,আজকে পর্যটকসহ দর্শনার্থীদের উপস্থিতী ভাল রয়েছে। তিনি জানান,বীচে মাস্ক ব্যবহার কারীর সংখ্যা কম।স্বাস্থ্য বিধী মানার বিষয়ে জেলা ও উপজেলা পর্যায় থেকে আমাদের চিঠি দেয়া হয়েছে,আমরা পর্যটকদের সচেতন করার বিষয়ে মাইকং করছি,হোটেলে গিয়ে পর্যটকদের স্বাস্থ্য বিধী মানার বিষয়টি মনিটরিং করছি।উপজেলা পর্যায় থেকে মাঝে মাঝে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হচ্ছে।জনগন যদি আরো একটু সচেতন হন তাহলে এটা মানানো সহজ হয়,তাহেল কাজটা সহজ হয়।