বৃহস্পতিবার, ১৮ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, বিকাল ৪:০৭
শিরোনাম :
নেছারাবাদ সাগরকান্দার কুখ্যাত ডাকাত রুবেল খুলনায় আটক উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত ডাক্তারের অবহেলায় নবজাতক মৃত্যুর অভিযোগ জেলা তথ্য অফিসের আয়োজনে নারী সমাবেশ ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষ‍্যে নেছারাবাদ উপজেলায় মতবিনিময় সভা বরিশালে যথাযোগ্য মর্যাদায় শহিদ দিবসের কর্মসূচি প্রাণ বাঁচাতে বাংলাদেশে বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তে আশ্রয় নিল ১৪ মিয়ানমার সেনা জীবন্ত মানুষকে পুড়িয়ে মারার দল বিএনপি: শেখ ফজলে শামস পরশ বিআইডব্লিউটিএ’র গুদামের আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে সার্ভিসের সাতটি ইউনিট অগ্রণী ব্যাংক ৯৭৫ তম রায়পুরা শাখার উদ্বোধন আসন্ন রায়পুরা পৌরসভা নির্বাচনে ২নং ওয়ার্ডে মোঃ বাহাউদ্দীনকে কাউন্সিলর করতে চান “ওয়ার্ডবাসী”

আবারও মামলা করলেন সঙ্গীতশিল্পী মিলা

ডেক্স রিপোর্ট : কণ্ঠশিল্পী মিলা এবং তার সাবেক স্বামী পারভেজ সানজারি একে অপরের বিরুদ্ধে মামলা করে চলেছেন। সানজারিকে এসিড ছুঁড়ে মারার দায়ে মিলার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়। এবার মিলা সানজারির বিরুদ্ধে ইউটিউবে কুৎসা রটানোর অভিযোগে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের আওতায় মামলা করেছেন মিলা। গত বৃহ¯পতিবার বিকালে সাইবার ক্রাইম ট্রাইব্যুনালের বিচারক আসসামছ মোহাম্মদ জগলুল হোসেনের আদালতে মামলাটি দায়ের করেন তিনি। আদালত বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ করেন। পরে মামলাটি পুলিশের কাউন্টার টেররিজমের সাইবার ইউনিটকে অভিযোগের তদন্ত করে আগামী ১৬ সেপ্টেম্বর প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন। মামলার অন্য দুই আসামিরা হচ্ছেন মিলার প্রাক্তন স্বামী পারভেজ সানজারির ভাই এসএমআর রহমান এবং মামাতো ভাই খান আল আমিন। বাদীপক্ষের আইনজীবী এইচ এম তানভীর ও বারের বর্তমান সেক্রেটারি আসাদুজ্জামান খান রচি শুনানি করেন। এজাহারে আরও উল্লেখ করা হয়, আসামিগন গত ১৫ জুন সিরাজি ভাই নামের এক ইউটিভব চ্যানেলে একটি ভিডিও প্রকাশ করে। যাতে সন্ত্রাসী পপ-তারকা মিলা শিরোনামে উল্লেখ করা হয়। আসামিগন বাদীর বিরুদ্ধে মিথ্যা তথ্য বলে ক্ষান্ত হননি বরং সেই কথাগুলো শেয়ার করে দেশের জনগণ ও আইন আদালত রাষ্ট্রপক্ষের বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করেছে। মামলার এজহারে উল্লেখ করা হয়, ২০১৭ সালের ১২ মে আসামি পারভেজ সানজারি সাথে মামলার বাদীর বিয়ে হয়। বিয়ের কয়েক মাস যাওয়ার পর মামলার বাদীকে মানসিক ও শারীরিকভাবে অত্যাচার করতে শুরু করে সানজারি। আসামি পারভেজ সানজারি একজন মাদকাশক্ত ,উচ্ছৃঙ্খল, অনৈতিক চরিত্রের হওয়ার বাদীকে যৌতুকের দাবীতে মারধর করে। এরপর বাধ্য হয়ে ২০১৭ সালের ৫ অক্টোবর উত্তর-পশ্চিম থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ও দন্ডবিধির আরেক ধারায় একটি মালমা দায়ের করেন। ওই মামলার পারভেজ সানজারিকে পুলিশ গ্রেফতার করেন। এর কিছুদিন পরে পারভেজ জামিন পান।

সবাইকে পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা